June 18, 2024 11:49 pm

৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

June 18, 2024 11:49 pm

৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

Recruitment of primary teachers :প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে আর কোন বাধা রইলো না, স্বস্তিতে ৯৫৩৩ চাকরি প্রার্থী

Facebook
Twitter
LinkedIn
Pinterest
Pocket
WhatsApp
#high# #court# #justice# #mantha

There is no obstacle in primary teacher recruitment, 9533 job candidates are relieved

রাজ্য

 দ্যা হোয়াইট বাংলা ডিজিটাল ডেস্ক : একজন নাগরিককে সরকারি চাকরির সুযোগ থেকে বঞ্চিত করতে পারে না প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ , মন্তব্য বিচারপতি রাজা শেখর মান্থার। প্রাথমিক নিয়োগ ২০২২ এ বিএড ও ডিএলেড থাকা পরীক্ষার্থীদের মেধাতালিকায় অন্তর্ভুক্ত করার নির্দেশ । আদালতের পর্যবেক্ষণ,প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের নিয়োগের খাতিরে অনেক কিছু বাধা পার হতে হয়েছে।
সুমন্ত কোলে সহ ১২জন পরীক্ষার্থীর জন্য আলাদা মেধা তালিকা প্রকাশের করতে হবে। পাশাপাশি পরীক্ষার নম্বরের ভিত্তিতে দেখা হবে তারা প্যানেলে সুযোগ পাবেন কি না। মামলাকারীরা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর বোর্ডের তাদের নাম বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত রূঢ়। শুধু ডিএলেড থাকতে হবে বোর্ডের এই আচরণ প্রতিকূল, মন্তব্য বিচারপতি রাজা শেখর মান্থার। মামলাকারি সুমন্ত কোলে সহ ১২ জন চাকরিপ্রার্থীর পক্ষের আইনজীবী ফিরদৌস শামিম আদালতে জানায় ২০২২ সালের ওই নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী ডিএলএডের পাশাপাশি বিএড ডিগ্রিধারীরাও প্রাথমিক শিক্ষক পদে চাকরির জন্য ফর্ম ফিলআপ করতে পারবেন।সুমন্ত কোলে সহ ১২জন চাকরিপ্রার্থীর বিএড এবং ডিএলএড, উভয় ডিগ্রিই রয়েছে।কিন্তু যেহেতু তাঁদের বিএড’এ প্রাপ্ত নম্বর বেশি, তাই তাঁরা সেই নম্বর ব্যবহার করে ফর্ম ফিলআপ করেছিলেন। সেকারণেই প্যানেল থেকে তাদের নাম বাদ দেওয়া হয়েছে। অথচ তাঁদের ডিএলএড ডিগ্রিও রয়েছে। তাই তাঁদের নামও মেধাতালিকায় অন্তর্ভুক্ত করার আর্জি জানান তিনি। শুক্রবার মামলার শুনানিতে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের আইনজীবীর দাবী এই মামলার সঙ্গে প্রকাশিত মেধা তালিকার কোনও সম্পর্ক নেই। যাঁরা মামলা করেছেন তাঁদের ডিএলএড এবং বিএড দু’টি ডিগ্রিই রয়েছে। বিএডের নম্বর বেশি থাকায় তাঁরা একসময় সেই নম্বর দিয়ে আবেদন করেছিলেন। কিন্তু এক্ষেত্রে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে বিএডের ডিগ্রি গ্রহণযোগ্য না হওয়ায় তাঁরা ফের এখন ডিএলএডের ডিগ্রিকে গুরুত্ব দিতে বলছেন। পাশাপাশি পর্ষদ সভাপতি এও জানিয়েছেন, অনেক প্রার্থী এনআইওএস থেকে ডিএলএড করেছেন, আদালতের নির্দেশেই তাঁদেরও সুযোগ দেওয়া যাবে না। যোগ্যতামান কম থাকার ফলে যেসব প্রার্থীকে ইন্টারভিউয়েই ডাকা হয়নি, তাঁরাও মামলাকারীদের তালিকায় রয়েছেন।প্রাথমিক নিয়োগ ২০২২ এ বিএড ও ডিএলেড থাকা পরীক্ষার্থীদের মেধাতালিকায় অন্তর্ভুক্ত করার নির্দেশ । আদালতের পর্যবেক্ষণ,প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের নিয়োগের খাতিরে অনেক কিছু বাধা পার হতে হয়েছে।সুমন্ত কোলে সহ ১২জন পরীক্ষার্থীর জন্য আলাদা মেধা তালিকা প্রকাশের করতে হবে। পাশাপাশি পরীক্ষার নম্বরের ভিত্তিতে দেখা হবে তারা প্যানেলে সুযোগ পাবেন কি না। মামলাকারীরা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর বোর্ডের তাদের নাম বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত রূঢ়। শুধু ডিএলেড থাকতে হবে বোর্ডের এই আচরণ প্রতিকূল, মন্তব্য বিচারপতি রাজা শেখর মান্থার।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Pinterest
Pocket
WhatsApp

Related News

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top