May 26, 2024 8:00 am

১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

May 26, 2024 8:00 am

১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

Lok sabha election fighting :লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলে টিকিট না পেয়ে অভিমানী ডাক্তার শান্তনু সেন

Facebook
Twitter
LinkedIn
Pinterest
Pocket
WhatsApp

As the Lok Sabha elections are approaching, the conflict is increasing! Doctor Shantanu Sen was very upset about not getting Rajya Sabha ticket. He thought the party would field him again in the by-elections. But didn’t. But there was hope in the Lok Sabha election Dr. Shantanu Sen. He hoped that the Trinamool Congress might give him a ticket in view of his work in the Lok Sabha elections. Shantanu Babu was seen quite a bit besura as he did not get the ticket.

রাজ্য

দ্যা হোয়াইট বাংলা ডিজিটাল ডেস্ক:

লোকসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে ততই বাড়ছে কোন্দল! উত্তর কলকাতার সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে কোন দলের জেরে আগেই তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়েছে বিধায়ক তাপস রায়। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাই বাবুন বন্দ্যোপাধ্যায় দলীয় টিকিট না পাওয়ায় অভিমানী হয়ে নির্দল প্রার্থী হয়ে দাঁড়াতে চেয়েছেন হাওড়া কেন্দ্র থেকে। এদিকে রাজ্যসভার টিকিট না পেয়ে অনেকটা মন খারাপ হয়েছিল ডাক্তার শান্তনু সেনের। তিনি মনে করেছিলেন উপ-নির্বাচনে পুনরায় দল তাকে প্রার্থী করবে। কিন্তু করেনি। তবে আশায় ছিল লোকসভা নির্বাচনে ডাক্তার শান্তনু সেন। তিনি আশা করেছিলেন লোকসভা নির্বাচনে তার কাজের নিরিখে হয়তো তৃণমূল কংগ্রেস তাকে টিকিট দেবে। টিকিট না পাওয়া য় বেশ খানিকটা বেসুরা দেখতে পাওয়া গেল শান্তনু বাবুকে। গত দশই মার্চ ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ড থেকে ৪২ টি কেন্দ্রের প্রার্থী ঘোষণা করেছে তৃণমূল কংগ্রেস।

বুধবার লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের টিকিট না পেয়ে অনেকটাই অভিমানী এবং আক্ষেপের সুর শুনতে পাওয়া গেল দীর্ঘদিনের তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী প্রাক্তন পৌর প্রতিনিধি তথা প্রাক্তন রাজ্যসভার সাংসদ ডাক্তার শান্তনু সেনকে। এদিন তিনি জানিয়েছেন পেশাগত জায়গা থেকে যতনা তিনি ব্যস্ত থাকেন তার থেকে বেশি সময় ব্যস্ত থাকেন দলীয় কাজ কর্মে। ২০০১ সালে নির্বাচনে পোলিং এজেন্ট বসে সিপিআইএমের কর্মীদের হাতে মার খেয়েছিলেন। বিজেপির বিরুদ্ধে বার বার সড়ক হয়েছিলেন শান্তনু। শুধু তাই নয় বিভিন্ন সময়ে দলের হয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। দল তাকে টিকিট না দেওয়ায় অনেকটাই আসাহত হয়েছেন তিনি। অন্যদিকে লোকসভা নির্বাচনে টিকিট না পেয়ে আরো এক অভিমানী হলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাই বাবুন বন্দোপাধ্যায়।

ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে টিকিট না পেয়ে বিজেপির পথেই পা বাড়িয়ে রয়েছে সাংসদ অর্জুন সিংহ। এদিন এ বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন প্রত্যেকের নিজস্ব স্বাধীনতা আছে তাই যার যেখানে ইচ্ছে অবশ্যই তিনি যেতে পারেন।

১১ই ফেব্রুয়ারিতে তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্যসভার প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করেছে । সেই প্রার্থী তালিকায় নতুন চমক দিয়েছে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস।তেমনি পাশাপাশি দীর্ঘ দিনের তৃণমূলের একনিষ্ট কর্মী নেতা তথা প্রাক্তন রাজ্যসভার সাংসদ শান্তনু সেনকে প্রার্থী পদ দেয়নি দল যা নিয়ে শুর হয়েছে জল্পনা।

দীর্ঘদিন রাজ্যসভার সদস্য থাকার অভিজ্ঞতা রয়েছে তৃণমূল নেতা তথা প্রাক্তন রাজ্য সভা সংসদ ডাক্তার শান্তনু সেনের। কিভাবে প্রশ্ন উত্তর পর্বে রাজ্যের কথা এবং দেশের কথা তুলে ধরা যায়।সামনেই ২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচন। সেই নির্বাচনে তৃণমূলের অনেক বর্ষীয়ান নেতা হয়তো টিকিট পাবেন না তাদের বয়সজনিত সমস্যার কারণে। লোকসভায় শিক্ষিত এবং অভিজ্ঞতা সম্পন্ন প্রতিনিধি পেতে চায় তৃণমূল। সেটাকেই মূলত কাজে লাগাতে এবার লোকসভা ভোটে শান্তনু সেনকে প্রার্থী করতে চলেছে তৃণমূল বলে সূত্রের খবর।

ছাত্র রাজনীতি থেকে কলেজ রাজনীতি, পোড় খাওয়া তৃণমূল নেতা একদা কলকাতা পুরসভার কাউন্সিলর হিসেবে কাজের অভিজ্ঞ্যতা রয়েছে। বর্তমানে তার স্ত্রী চিকিৎসক কাকলি সেন তিনি কলকাতা পুরসভার ২নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর। বিভিন্ন সময়ে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দিয়েছিল তৃণমূল সুপ্রিম মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দল যে দায়িত্ব দিয়েছিল বারবার সেখানে সাফল্য পেয়েছেন শান্তনু বাবু। সংসদীয় রাজনীতিতে সাফল্যের মাপকাঠিতে তিনি একশোয় একশো। সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত ডাক্তার শান্তনু সেন লোকসভা নির্বাচনের টিকিট না পাওয়ায় বেশ খানিকটা অভিমানীর সুর শুনতে পাওয়া গেল ডাক্তার শান্তনু সেনের গলায়।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Pinterest
Pocket
WhatsApp

Related News

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top