June 17, 2024 5:35 am

৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

June 17, 2024 5:35 am

৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

EDsummons Mukul, Dev, Mahua আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগে মুকুল, দেব, মহুয়াকে তলব করলো ইডি। তৃণমূল কংগ্রেসের দুই সাংসদ, এক বিজেপি বিধায়ক

Facebook
Twitter
LinkedIn
Pinterest
Pocket
WhatsApp

ED summons Mukul, Dev, Mahua on charges of financial corruption. Two Trinamool Congress MPs, one BJP MLA.

রাজ্য

দ্যা হোয়াইট বাংলা ডিজিটাল ডেস্ক:

চলতি মাসের ২১শে ফেব্রুয়ারি এরাজ্যের মানুষের কাছে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ! বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই দিনেই এরাজ্যের ১০০দিনের কাজের টাকা যেটা বার বার কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে চেয়েও পায়নি। সেই টাকা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী গ্রামবাংলার ওই ১০০দিনের টাকা দিতে চলেছেন। পাশাশাসি লোকসভা নির্বাচনের আগেই ২১শে ফেব্রুয়ারি পাঞ্জাব যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী সঙ্গে আসন সমঝোতা নিয়ে কথা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

রাজ্যের একের পর এক দুর্নীতির মামলায় নাম জড়িয়েছে শাসক দলের বিধায়ক, এমপি থেকে নেতা কর্মীদের। আগামী ২১শে ফেব্রুয়ারি ঘাটালের সাংসদ দীপক অধিকারী ওরফে দেবকে তলব করা হয়েছে দিল্লির ইডির সদর দফতরে। তার বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ আনা হয়েছে। ২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে সিবিআই গরু পাচার মামলায় তদন্ত করতে গিয়ে দেবকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল। ঠিক এক বছরের মাথায় ফের তাকে তলব করা হয়েছে PMLA আইনে। আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগ করেছিলেন বিজেপি বিধায়ক হিরণ চট্টোপাধ্যায়। ৫কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগ এনেছিল।

তৃণমূলের কৃষ্ণনগরের সাংসদ মহুয়া মৈত্রকেও দিল্লির ইডির সদর দফতরে তলব করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে লোকসভায় টাকার বিনিময়ে প্রশ্ন মতো অভিযোগ যেমন এনেছে। পাশাপাশি বিদেশী মুদ্রা সংক্রান্ত বিষয় রয়েছে। যদিও শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের অভিযোগ রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে কেন্দ্রীয় এজেন্সিকে কাজে লাগিয়ে লোকসভা ভোটের আগে ভয় দেখাচ্ছে। এতে তৃণমূল কংগ্রেস ভয় পাচ্ছেন না।

কিন্তু, বিজেপি বিধায়ক মুকুল রায়কে কেন ইডি দিল্লি তলব করলো ইডি। প্রশ্ন রাজনৈতিক মহলের একাংশের। কারণ মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে অ্যালকেমিস্ট ৩০০কোটি টাকার আর্থিক বেনিয়নের অভিযোগ আনা হয়েছে। দীর্ঘ বেশ কয়েক মাস ধরে শারীরিক অসুস্থতার কারণে রাজনৈতিক মঞ্চ থেকে অনেক দূরে সরে গিয়েছেন। শারীরিকভাবে এতটাই অসুস্থ বাড়ির বাইরে পর্যন্ত বেরোতে পারেন না এইরকম অবস্থায় দিল্লির ইডি সদর দপ্তরে পৌঁছানো তার কাছে অত্যন্ত কঠিন ব্যাপার। যদিও মুকুল বাবুর পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন তাঁর পক্ষে দিল্লি যাওয়ার সম্ভব নয়, বিডি আধিকারিকরা কলকাতায় অথবা কাঁচরাপাড়ায় তার বাড়িতে এলে তদন্তের সবরকম সহযোগিতা করবেন

Facebook
Twitter
LinkedIn
Pinterest
Pocket
WhatsApp

Related News

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top