June 19, 2024 1:08 am

৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

June 19, 2024 1:08 am

৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

Death in police custody! পুলিশি হেফাজতে মৃত্যু ! ফের প্রশ্নের মুখে মমতার পুলিশ।রাজ্যের কাছে রিপোর্ট তলব কলকাতা হাইকোর্টের।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Pinterest
Pocket
WhatsApp

Death in police custody! Mamta’s police under question again. Calcutta High Court has called for a report from the state.

রাজ্য

দ্যা হোয়াইট বাংলা ডিজিটাল ডেসকোন অভিযোগ দায়ের না করে যুবককে তুলে এনে। ৪৮ ঘণ্টা থানায় রাখার মধ্যে তার রহস্য মৃত্যু। আদালতের নির্দেশ সত্বেও আই ও কে সাসপেন্ড করার পরে ফের তা প্রত্যাহার করে নেওয়ার ঘটনায় বিস্মিত হাইকোর্ট। ওই অফিসারের বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্তের নথি পেশ করতে হবে ১১ মার্চ শুনানিতে। আদালতের অনুমতি ছাড়া ফাইনাল রিপোর্ট দিতে পারবে না সিআইডি। সিসিটিভি বসানোর জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের ভাগের টাকা না দেওয়ার অভিযোগ। কেন্দ্র কে মামলায় যুক্ত করার নির্দেশ।

জ্র্দররাজ্যের তরফে আদালতে জানায় মুর্শিদাবাদ নবগ্রাম থানায় লকাপে রহস্য মৃত্যু যুবকের। বাথরুমের মধ্যে থেকে দেহ পাওয়া যায়। সেখানে কোনো সিসিটিভি নেই। ফলে ঢোকা বা বেরোনোর ব্যাপারটা জানা যাচ্ছে না।
বিচারপতি রাজ্যের উদ্দেশে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ কিন্তু থানার সর্বত্র সিসিটিভি লাগাতে হবে।
বিচারপতি বলেন,একজনকে অভিযুক্ত হইবে আপনাদের হেফাজতে আনা হলো। কিন্তু কোর্টে তোলা হলো না। তারপর দেহ পাওয়া গেলো। আর কিছুই জানা গেলো না। শুধু অফিসারদের বদলি করা হলো। আর একজন সাসপেন্ড। পরে তুলেও নেওয়া হলো! কেনো? ডিপার্টমেন্টাল enquery রিপোর্ট নিয়ে আসুন।
মামলার আইনজীবী: গলায় বেল্ট বেঁধে ঝুলে পড়লো। কিন্তু কেউ কিছু জানলো না, এটা রহস্য।
বিচারপতি রাজ্যের উদ্দেশ্যে কেনো তাকে গ্রেপ্তার করা হলো না? সবটাই অন্ধকারে রেখেছেন। কারণ সিসিটিভি লগানো হয়নি সর্বত্র। ৪৮ ঘণ্টা গ্রেপ্তার না দেখিয়ে আটক রাখে। আর তার মধ্যে রহস্য মৃত্যু সেই যুবকের। সবচেয়ে অবাক করার বিষয় suspend করার পর টা প্রত্যাহার করা হয় ওই অফিসারের।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Pinterest
Pocket
WhatsApp

Related News

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top