June 17, 2024 5:37 am

৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

June 17, 2024 5:37 am

৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

Abhishek’s open challenge to the judge:অভিষেককে খোলা চ্যালেঞ্জ বিচারপতির! “ডায়মন্ড হারবারে দাঁড়াতে ভয় পাই না, তালপাতার সিপাহীকে লক্ষ লক্ষ ভোটে হারাতে পারি।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Pinterest
Pocket
WhatsApp

Abhishek’s open challenge to the judge! “I am not afraid to stand at Diamond Harbour, defeating Talpatar Sepoy by millions of votes.

রাজ্য

দ্যা হোয়াইট বাংলা ডিজিটাল ডেস্ক:

মঙ্গলবার কলকাতা হাইকোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক তথা ডায়মন্ড হারবারের তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম না করেই তিনি তাকে তালপাতা সেপাই বলে কটাক্ষ করেন। তিনি এখানেই থেমে থাকেনি তিনি তৃণমূল কংগ্রেসকে যাত্রা পার্টি বলেও বিঁধেছেন। এদিন বিচারপতির বাসুভবনে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এ চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন ভারতীয় জনতা পার্টি যদি তাকে ডায়মন্ড হারবারের লোকসভার প্রার্থী করেন তাহলে সেখানে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কে লক্ষ লক্ষ ভোটে হারাতে পারেন। যদিও তার নাম উচ্চারণ না করে ‘তালপাতার সেপাই’ বলে কটাক্ষ করেছেন তিনি। এবার বিজেপি যোগ নিয়ে প্রাক্তন বিচারপতিকে পালটা দিলেন অভিষেক।সাংবাদিক সম্মেলনে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে বিঁধেছেন অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। একবারও নাম উচ্চারণ না করে ‘তালপাতার সেপাই’ বলে কটাক্ষ করেছেন তিনি। এবার বিজেপি যোগ নিয়ে প্রাক্তন বিচারপতিকে পালটা দিলেন অভিষেক।

মঙ্গলবার ইকো পার্কে গিয়েছিলেন অভিষেক। পাশে ছিলেম মন্ত্রী সুজিত বসু এবং বিধায়ক তাপস চট্টোপাধ্যায়। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “রিড বিটুইন দ্য লাইন। উনি তাহলে এটা বললেন, ‘যখন আমি হাইকোর্ট বিচারপতি অবস্থায় ছিলাম (অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়) এজলাসে বসেছি, তখন বিজেপি আমার (অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়) সঙ্গে যোগাযোগ রেখেছিল। আমি বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ রেখেছি।’ বাকিটা আমি জনগণের উপর ছেড়ে দিলাম।”

অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জানান “বিজেপি একমাত্র সর্বভারতীয় দল। ওরা তৃণমূলের দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই করছে। তাই বিজেপিতে যোগ দিচ্ছি।” সঙ্গে তাঁর সংযোজন, “খুব অল্প সময়ে যোগদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বিজেপি আমাকে প্রস্তাব দেয়। ৭ দিনের মধ্যে আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি।” ওই সময় তিনি আদালতে বসিনি। এই ৭ দিন আইনের কোনও কাজ করেননি। তখন বিজেপির সঙ্গে কথা চলেছিল। এর পরই পদত্যাগ করে রাজনীতিতে যোগ দিলেন ‘বহুচর্চিত’ প্রাক্তন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। শেষে তাঁর খোঁচা, তৃণমূল মুখপাত্রদের অনুপ্রেরণায় বিজেপিতে যোগ দিলাম। ওঁরা আমাকে চ্যালেঞ্জ করেছিলেন। সেই চ্যালেঞ্জ স্বীকার করে ভোটের ময়দানে চলে এলাম।” একইসঙ্গে জানিয়ে দিলেন কেন তিনি কংগ্রেস বা সিপিএমে যোগ দিচ্ছেন না।পাশাপাশি প্রাক্তন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় জানিয়েছেন, কোন আসনে তিনি দাঁড়াবেন তা এখনও চূড়ান্ত নয়। এবিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব। তারা যা দায়িত্ব দেবে তা পালন করবেন।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Pinterest
Pocket
WhatsApp

Related News

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top